নেই চেয়ারম্যান ও সিনিয়র শিক্ষক, পরীক্ষা বর্জন ও আন্দোলন করছে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি: প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে হলো উচ্চশিক্ষা অর্জন করা। উচ্চশিক্ষা নিশ্চিতে সবথেকে গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকগণ। তবে এক্ষেত্রে অনেকটা ব্যতিক্রম গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেমুরবিপ্রবি)। বিশ্ববিদ্যালয়টিতে পর্যাপ্ত শিক্ষক না থাকার কারণে শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে আন্দোলন করছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি বিভাগেই রয়েছে শিক্ষক সংকট। এর মধ্যে সবথেকে বেশি শিক্ষক সংকটে রয়েছে ফুড অ্যান্ড এগ্রো প্রসেস ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ, আর্কিটেকচার, বোটানি এবং ইতিহাস।

গত ১৫ দিন যাবৎ ক্লাস এবং সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা বর্জন করে সিনিয়র শিক্ষক ও স্থায়ী ল্যাবের দাবিতে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সাধারণ শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করছে।

এ সম্পর্কে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী শফিকুর রহমান বলেন, সিনিয়র শিক্ষক এবং ল্যাব সুবিধার জন্য শুরু থেকেই আমরা আমাদের দাবি দাওয়া বিভিন্ন ভাবে জানিয়ে আসলেও এর সমাধান আমরা পাই নি। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত পনেরো দিন যাবৎ আমরা পরীক্ষা বর্জন করে আন্দোলন করলেও সিনিয়র শিক্ষক নিয়োগের ব্যাপারে কোনো প্রকার আশ্বাস প্রশাসনের পক্ষ থেকে দেওয়া হয়নি। কেবল দুজন লেকচারার নিয়োগের কথা বলা হলেও আমাদের দাবি হলো সিনিয়র শিক্ষক অর্থাৎ প্রফেসর অথবা অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর নিয়োগ দেওয়া।

তৃতীয় বর্ষের আরেকজন শিক্ষার্থী জহরুল ইসলাম সৈকত বলেন বলেন, এই ডিপার্টমেন্ট প্রতিষ্ঠার দীর্ঘ চার বছর পার হলেও আমাদের ডিপার্টমেন্টের নিজস্ব কোন চেয়ারম্যান নেই। আমরা এমন এক বিশ্ববিদ্যালয়ের এমন এক ডিপার্টমেন্টে পড়ি যেখানে শিক্ষক সংকটের জন্য আন্দোলন করতে হয়।

তিনি আরও বলেন, বিভাগের ল্যাবসহ যাবতীয় সমস্যাগুলো ডিপার্টমেন্টে যদি একজন নিজস্ব চেয়ারম্যান থাকেন তাহলে সমাধান করা সহজতর হয় । কিন্তু সিনিয়র কোনো শিক্ষক না থাকায় এটা সম্ভব হচ্ছে না। সিনিয়র শিক্ষক চাওয়া হলে আমাদেরকে বলা হয় এই বিশ্ববিদ্যালয়ে সিনিয়র কোনো শিক্ষক আসতে চাই না কিন্তু এজন্য আমরা কেনো ভুক্তভুগী হবো ।

আমাদের দাবি হলো একজন সিনিয়র শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হোক যিনি আমাদের ডিপার্টমেন্টের নিজস্ব চেয়ারম্যান হতে পারবেন। যতদিন আমরা নিজের ডিপার্টমেন্টের সিনিয়র টিচার যিনি চেয়ারম্যান হবার যোগ্য এমন কাওকে না পাবো ততদিন আমাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

নিয়োগের অগ্রগতি সম্পর্কে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বলেন,সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টের শিক্ষক নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হয়েছে। নিয়োগ বোর্ড গঠন হয়েছে। খুব শীঘ্রই নিয়োগ দেওয়া হবে।

About Bangla Gov Jobs

Check Also

এনার্জেটিক ফিউচার লিডারশিপ প্রোগ্রামের (ইএফএলপি) ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয়েছে এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশন লিমিটেড (ইপিজিএল) আয়োজিত ‘এনার্জেটিক ফিউচার লিডারশিপ প্রোগ্রাম’ (ইএফএলপি) ইনটেক-১ এর ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠান। এই প্রোগ্রামের মাধ্যমে প্রকৌশল বিভাগে অধ্যয়নরত তৃতীয়-চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীদের নিজ নিজ পছন্দের শিক্ষাক্ষেত্রে সম্ভাবনাময় ক্যারিয়ার গড়ে তোলার লক্ষ্যে নেটওয়ার্কিং ও ট্রেনিং সুবিধা প্রদান করবে এনার্জিপ্যাক। অনুষ্ঠানটি ভার্চুয়াল মাধ্যমে আয়োজন করা হয়। ১ হাজারেরও অধিক আবেদনকারীর মধ্য থেকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *