গোপালগঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্রী মনীষা হিরার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রবিবার (১১ সেপ্টেম্বর) ভোর ৬ টার দিকে গোপালগঞ্জের সবুজবাগে ভাড়া বাসার একটি কক্ষে মনীষা হিরার ঝুলন্ত দেহ দেখতে পায় তার বাবা-মা। মেধাবী শিক্ষার্থীর এমন মৃত্যুতে বিশ্ববিদ্যালয়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সভাপতি শেখ আশিকুর রহমান প্রিন্স বলেন, “আত্মহত্যার সংবাদ পাওয়ার পর পরই আমাদের কয়েকজন শিক্ষক-শিক্ষার্থী ঘটনাস্থলে গিয়েছে। কি ঘটেছে কিংবা কেনো আত্মহত্যা করেছে এ বিষয়ে নিশ্চিতভাবে বলা যাচ্ছে না। তবে আমাদের এই শিক্ষার্থী আগে থেকেই কিছুটা ডিপ্রেসড ছিল। হতে পারে ডিপ্রেশন থেকেই সে আত্মহত্যা করেছে।”

ছাত্রীর সহপাঠীরা জানান, “প্রায় এক মাস আগে মনীষা হীরার প্রেমিক আত্মহত্যা করেন। এরপর থেকে তিনি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন। তাদের ধারণা, প্রেমিকের মৃত্যুর শোক সইতে না পেরে মনীষা আত্মহত্যা করেছেন।”

গোপালগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, “খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া এক ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।”

About Bangla Gov Jobs

Check Also

নেই চেয়ারম্যান ও সিনিয়র শিক্ষক, পরীক্ষা বর্জন ও আন্দোলন করছে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি: প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে হলো উচ্চশিক্ষা অর্জন করা। উচ্চশিক্ষা নিশ্চিতে সবথেকে গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকগণ। তবে এক্ষেত্রে অনেকটা ব্যতিক্রম গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেমুরবিপ্রবি)। বিশ্ববিদ্যালয়টিতে পর্যাপ্ত শিক্ষক না থাকার কারণে শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে আন্দোলন করছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি বিভাগেই রয়েছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *